বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন
add

মাগুরা মহম্মদপুরের নৌকা বাইচ দেশের মধ্যে সেরা, লাখো মানুষের মিলন মেলা

জালাল উদ্দিন হাক্কানী / ৩১৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৫ নভেম্বর, ২০২১
add

মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলা সদরের পাশ দিয়ে বয়ে চলা খরোস্্েরাতা মধুমতি নদীর উপর শতকোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত শেখ হাসিনা সেতু। এই সেতুকে কেন্দ্র করেই প্রতি বছরের ন্যায় গ্রামীন জনপদে- সংস্কৃতির অন্যতম মাধ্যম গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা অনুষ্টিত হয়। যা উপভোগ করতে মধুমতি নদীর দুই-পাড়ে সব বয়সী নারী-পুরুষের ঢল নামে।

স্থানীয়, জেলা ও ঢাকা থেকে অনেক মিডিয়ার সাংবাদিকরা নৌকা বাইচ ও মেলার স্বচিত্র প্রতিবেদন করতে ব্যস্ত সময় পার করেন। বাৎষরিক এ নৌকা বাইচ ও মেলা এখন মহাম্মদপুর উপজেলার মধুমতি নদী সংলগ্ন ২২টি গ্রামের সব চেয়ে বড় উৎসব। উৎসবকে নির্বিগ্ন করতে সু-নির্দ্দিষ্ট কোন স্বেচ্ছাসেবক টিম নেই, তবে পুলিশের পাশা-পাশি গ্রামের সবাই আন্তরিক সহযোগীতায় এগিয়ে নিচ্ছে বছরের পর বছর।

নদীতে বাইচ নৌকা যখন এগিয়ে চলে পাল্লা দিয়ে তখন মাঝি মাল্লারা হেইয়ারে হেইয়া বলে আওয়াজ তুলে নিজেদের শক্তি বৃদ্ধি করে। এ সময় নদী পাড়ে অপেক্ষামান লাখো দর্শকের চোখে মূখে নির্মল আনন্দ হাসির জোয়ার বয়ে যায়। সৃষ্টি হয় মানুষে মানুষে ভালবাসার সৌহার্দ। এ এক অন্য রকম উৎসব, সব কিছু মিলিয়ে একাকার হয় নদীর ছোট বড় ঢেও। নদীর শ্রোত উপেক্ষা করে ঢেও ভেঙ্গে ভেঙ্গে নিজের নৌকাকে বিজয়ী করতে প্রতিটি নৌকার ৪০ থেকে ৫০ জন দক্ষ ও শক্তিশালি মাঝি বৈঠা মারে, এক সাথে বাজনার তালে তালে।

লাখো দর্শকের আনন্দ উল্লাাসের মধ্যদিয়ে মাগুরার মহম্মদপুরের মধুমতি নদীতে অনুষ্টিত হয়েছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্য বাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা। নৌকাবাইচ উপলক্ষে নদীর দুইপাড়ে নিত্যপন্যসহ নানা পসরা নিয়ে বসেছে গ্রামীন মেলা। মাগুরা, ফরিদপুর, কুষ্টিয়া, নড়াইল, গোপালগন্জ, খুলনাসহ বিভিন্ন জেলার ২৮টি বাইচ নৌকা অংশ নেয় এ প্রতিযোগীতায় ।

মাগুরার মহম্মদপুর ও ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার মাঝে মধুমতি নদীর উপর সাবেক এলাংখালী ফেরিঘাটের শেখ হাসিনা সেতুকে কেন্দ্র করে ৪ঠা নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেলে মহম্মদপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে অষ্টম বার্ষিক বিহারী লাল নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্টিত হয়।

গ্রামবাংলার ঐতিহ্য বাৎসরিক এ নৌকা বাইচ উপভোগ করতে সকাল থেকেই শেখ হাসিনা সেতু সংলগ্ন মধুমতি নদীর দুই পাড়ে পার্শবর্তী যশোর, ঝিনাইদাহ, নড়াইল, ফরিদপুরসহ কয়েকটি জেলার বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ ও এলাকার শিশু, কিশোর-কিশোরীসহ সকল বয়সী নারী-পুরুষ উৎসবে মেতে ওঠেন। তাদের উপস্থিতিতে এলাকায় সৃষ্টি হয় এক আনন্দঘন ও উৎসবমূখর পরিবেশ।

প্রতিটি বাড়িতে আত্বিয় স্বজন ভিড় করে। আপ্যায়নে প্রতিটি বাড়িতে বাড়িতে উন্নত খাবার ও পিঠা পুলি তৈরি হয়। মেলা প্রাঙ্গন ছাড়িয়ে মহম্মদপুর উপজেলা সদরের হোটেলসহ সকল দোকান-পাটে বেচাকেনার ধুম পড়ে যায়।

দুপুর থেকে নৌকা বাইচ শুরু হলে মধুমতি নদীর দুই পাড়ে নামে লাখো মানুষের ঢল। সংগীতের তাল- লয়ে দাঁড়িয়াদের ছন্দময় দাঁড় ও বৈঠা নিক্ষেপে নদীর পানি ময়ূরপঙ্খির মতোই ঝিলমিল করছিলো তখন। বাধ ভাঙ্গা উল্লাসে মেতে ওঠেন নদীর দু’পাড়ের মানুষ। মধুমতি নদীর দুই পাড়ে চলছে গ্রামীন মেলা, যা চলবে আরো তিনদিন। মেলায় মাছ, মাংস, ফার্নিচার, রকমারী খাবার, বা”্চাদের খেলনাসহ যাবতীয় জিনিসপত্র বিক্রি হয়।

এ নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় পৃথক দুটি গ্রæপে যথাক্রমে প্রথম স্থান অধিকার করে মাগুরা খানাবাড়ীর মোঃ আকরাম হোসেন ও দোষরাইলের আতর মোল্ল্যার নৌকা, দ্বিতীয় স্থান খুলনা দিঘলিয়ার খাজা সদ্দার ও কুষ্টিয়া খোকসার মাসুম বিল্লাহের নৌকা এবং তৃতীয় স্থান অধিকার করে গোপালগঞ্ছ কাশিয়ানীর মোঃ মনির হোসেন ও মাগুরা দুষরাইলের আতিক মোল্ল্যার নৌকা।

নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মধ্যে প্রধান অতিথি হিসাবে পুরস্কার তুলেদেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ড. শ্রী বীরেন শিকদার-এমপি। উপজেরা নির্বাহী অফিসার রামানন্দ পালের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাগুরা জেলা প্রশাসক ডক্টর আশরাফুল আলম, মাগুরা পুলিশ সুপার মোহম্মদ জহিরুল ইসলাম, মহম্মদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু আব্দুল্লাহেল কাফি, মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ নাসির উদ্দিন, উপজেলা ক্রিড়া সংস্থার সদস্য সচিব মিজানুর রহমান মিলন।

আগামী বছরের এই দিনটির প্রতিক্ষায় আবারো নতুন করে দিন গুনতে শুরু করেছে মহাম্মদপুর বাসী। নতুন স্বপ্ন, নতুন প্রত্যাশা নিয়ে আবার এই জনপদে ফিরে আসুক খুশির বার্তা নিয়ে- এমন শুভ কামনায় দৈনিক মাগুরা কন্ঠ পরিবার।

মাগুরা জেলার যে কোন সত্য ও বস্তুুনিষ্ট সংবাদ পড়তে অনলাইনে ভিজিট করুন নিউজ পোটাল ডাবলু ডাবলু ডাবলু ডট দৈনিক মাগুরাকন্ঠ ডট কম। এ ছাড়া ফেসবুকে আমাদের দৈনিক মাগুরা কন্ঠ পেজে লাইক শেয়ার দিয়ে সংঙ্গেই থাকুন।

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!